সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৬:২৯ পূর্বাহ্ন

কলেজছাত্রীকে শ্বাসরোধে হ”ত্যার অভিযোগে স্বামী-শ্বশুর আ”টক

প্রতিনিধির নাম / ৯৪ বার
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ৯ জুন, ২০২২

ছবি সংগ্রহীত
স্নাতক পড়ুয়া এক কলেজছাত্রীকে নির্যাতন করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তাঁর স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে। আজ বৃহষ্পতিবার দুপুর আড়াইটার দিকে দিকে পুলিশ সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নের সোনাতলা গ্রাম থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে। পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মৃতের স্বামী ও শ্বশুরকে আটক করেছে।

নিহতের নাম শাহীনা রাসুল হাসি (২০)। তিনি কালিগঞ্জ উপজেলার সোনাতলা গ্রামের মাসুদুর রহমান হাসানের স্ত্রী ও একই উপজেলার চাঁচাই গ্রামের আমিরুল ইসলামের মেয়ে।
নিহতের ভাই জানান,

২০২০ সালে কোরবানির ঈদের আগে তার বোন দক্ষিণশ্রীপুর-কুশুলিয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী শাহীনা রাসুল হাসির সঙ্গে সোনাতলা গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মোবারক আলীর ছেলে মাসুদুর রহমান হাসানের বিয়ে হয়।

ভগ্নিপতি বেকার হলেও তার বোন কালিগঞ্জ রোকেয়া মুনসুর ডিগ্রি কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্রী। ভগ্নিপতি মাঝে মাঝে তার বোনকে বাড়ি থেকে টাকা আনতে বলত। বৃহস্পতিবার বোনের অনার্স প্রথম বর্ষের ফর্ম পূরণের শেষ দিন ছিল। এ টাকা চাওয়ায় হাসানের সঙ্গে হাসির বচসাও হয় বলে শুনেছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে ভগ্নিপতি মাসুদুর রহমান হাসান মোবাইল ফোনে তাকে জানান, বোন হাঁসি আত্মহত্যা করেছে। ১০টার দিকে তিনি বোনের বাড়িতে এসে গোসলখানার আড়ায় ওড়না পেঁচানো ঝুলন্ত লাশ দেখতে পান।

বোনের লাশ গোসলখানার মেঝেতে বসা অবস্থায় ঝুলছিল। তার নাক দিয়ে রক্ত বের হচ্ছিল। তিনি আশঙ্কা করছেন, হাসিকে নির্যাতন চালিয়ে শ্বাস রোধ করে হত্যার পর লাশ ঝুলিয়ে দিয়ে আত্মহত্যার প্রচার করা হচ্ছে।

এদিকে নিহতের স্বামী মাসুদুর রহমান হাসান জানান, বিয়ের পর হাসিকে মাঝে মাঝে অপ্রকৃতিতস্ত অবস্থায় দেখা যেত। সে বৃহস্পতিবার সকালে গোসল করতে গিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

নিহতের শ্বশুর অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মোবারক হোসেন জানান, বুধবার পরিবারের সবাই একসাথে বসে রাতের খাবার খেয়েছেন। পরের দিন সকালে বাথরুমের আড়ার সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় পুত্রবধূকে দেখতে পান তারা।

কালিগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক নকিব জানান, কালিগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আমিনুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। মৃতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় মৃতের ভাই ফয়সাল আহম্মেদ বাদী হয়ে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মৃতের স্বামী মাসুদুর রহমান হাসান ও শ্বশুর মোবারক আলীকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।
সূত্র সমকাল

Facebook Comments Box


এ জাতীয় আরো সংবাদ