বৃহস্পতিবার, ০৮ জুন ২০২৩, ০১:১৫ পূর্বাহ্ন

অবিশ্বাস্য হলেও সত্য, জেনে নিন যে দেশের জনসংখ্যা মাত্র ৩৩ জন!

রাব্বি মল্লিক / ১৪৭ বার
আপডেট : বুধবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

বিশ্বের মধ্যে এমন একটা দেশ আছে যেখানে রাষ্ট্রপতিকে একা রাস্তায় হাঁটতে দেখা যায়। তার সাথে কোনো নিরাপত্তা বাহিনী থাকে না। আর এই দেশটির জনসংখ্যা মাত্র ৩৩ জন। দেশটির নাম হচ্ছে মোলোসিয়া। স্বঘোষিত এই দেশটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নেভাদায় অবস্থিত।

আসুন দেশটি সর্ম্পকে বিস্তারিত জানি..

আসলে মোলোসিয়া দেশটি ১৯৭৭ সালে তৈরি হয়েছিল। এই দেশে বসবাসকারী দুই ব্যক্তি নতুনদেশ তৈরির কথা ভেবেছিলেন। সেই দুই ব্যক্তির মধ্যে একজন হলেন কেভিন বাঘ এবং তার বন্ধু। তারা আমেরিকা থেকে আলাদা একটি নতুন দেশ বানালেন।

কেভিনের বন্ধুরা মিলে এই দেশের ভিত্তিস্থাপন করলেন। তখন থেকেই কেভিন এদেশে রাষ্ট্রপতি। এই দেশটি স্বৈরশাসক হিসেবে ঘোষণা করেছেন কেভিন।

কেভিনের স্ত্রী দেশের প্রথম লেডির মর্যাদা পেয়েছেন। এই দেশে বসবাসকারী বেশিরভাগ নাগরিককে কেভিনের আত্মীয় বলেই মনে করা হয়। যদিও বিশ্বের অন্য কোন সরকার এই দেশকে স্বীকৃতি দেয়নি।

তবে অন্যান্য দেশের মতো এই দেশে দোকান, লাইব্রেরী ও শ্মশান সব কিছুই রয়েছে। তাছাড়াও এই দেশে নিজস্ব মুদ্রা রয়েছে। এর সাথে নিজস্ব আইন, ঐতিহ্য সব কিছুই আছে।

মেলোসিয়াকে পর্যটন কেন্দ্রও বলা হয়ে থাকে। প্রতিবছর বিভিন্ন জায়গা থেকে পর্যটকরা এখানে ঘুরতে আসে। এখানে পর্যটকদের যাওয়া আসার জন্য পাসপোর্ট এর স্ট্যাম্প নিতে হবে। এটা এখানকার সরকারের নিয়ম।

এই দেশটিতে আসতে আমেরিকা থেকে মাত্র ২ ঘণ্টা সময় লাগে। দেশের বিভিন্ন ভবন ও রাস্তাতে পর্যটকদের সাথে দেখা যায় এদেশের রাষ্ট্রপতি অর্থাৎ কেভিনকে। কেভিন দেশের উন্নয়নের জন্য অনেক কাজ করেছেন। এদেশের ভিত্তিস্থাপন ৮০ বছর পূর্ণ হয়েছে।

Facebook Comments Box


এ জাতীয় আরো সংবাদ